ম্যাচ শেষ   
Match 28, দ্য রোজ বোল, সাউথহ্যাম্পটন, Jun 22, 2019
ভারত ভারত
224/8 (50.0/50)
আফগানিস্তান আফগানিস্তান
213 (49.5/50)
আফগানিস্তান কে ভারত, 11 রানে হারাল

World Cup 2019, IND Vs AFG: শামির হ্যাটট্রিকে মান বাঁচল ভারতের

Updated: 22 June 2019 23:06 IST

লড়াই করে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ১১ রানে জয় ভারতের।

World Cup 2019, IND Vs AFG: Shami
আফগানিস্তানের লড়াইকে শেষবেলায় মাত দিলেন মহম্মদ শামি © এএফপি

দারুণ লড়াই আফগানিস্তানের (Afghanistan Cricket Team)। বিশ্বকাপের অন্যতম দাবিদার ইংল্যান্ডকে তাদের ঘরের মাঠেই শুক্রবার হারিয়ে নজির তৈরি করেছে শ্রীলঙ্কার মতো দূর্বল দল। এ বার আরও এক বিশ্বকাপের দাবিদার ভারতকে (Indian Cricket Team) রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছূড়ে দিল আরও এক দূর্বলতম দল এই বিশ্বকাপের। যারা এই পয়েন্টস টেবলের সব থেকে নিচে থেকেও ভারতকে রীতিমতো নাস্তানাবুদ করে দিল ব্যাটে-বলে। বল হাতে ভারতকে থামিয়ে দিল ২২৪ রানে। আর ব্যাট হাতে শেষ পর্যন্ত লড়াই দিলেন আফগানরা। শেষ ওভারে আফগানিস্তানের দরকার ছিল ১৬ রান। পর পর দুই বলে নবি ও আফতাবকে ফেরালেন শামি (Mohammad Shami)। শেষ ওভারে পর পর উইকেট মহম্মদ শামির। যা বদলে দিল ভারতের ভাগ্য। ৪৯.৫ ওভারে ২১৩ রানে শেষ হয়ে গেল আফগানিস্তান। ১১ রানে আফগানিস্তানকে হারিয়ে অপরাজিত থেকে গেল ভারত।  

শনিবার সাদাম্পটনের রোজ বোলে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। ভেবেছিলেন প্রথমে ব্যাট করে বড় রান তুলে দিলে প্রতিপক্ষ আর মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে না। কিন্তু হল ঠিক উল্টো। ভারতের প্রায় সব ব্যাটসম্যানই এ দিন ব্যর্থ। প্রথমে ব্যাট করে ভারত থামল ২২৪-৮-এ।

২০১১ বিশ্বকাপের পর আবার স্টাম্প আউট এমএস ধোনি, কেরিয়ারে দু'বার

ওপেন করতে নেমে এ দিন মাত্র ১ রান করে ফিরে গেলেন রোহিত শর্মা। প্রথম তিন ম্যাচে দুটো সেঞ্চুরি ও একটি হাফ সেঞ্চুরি করা রোহিত শর্মা একটা ইনিংসে ব্যর্থ হলে তাঁর দিকে আঙুল তোলার কোনও জায়গা নেই। আর এক ওপেনার লোকেশ রাহুল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম নেমেই হাফ সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। এদিন তিনি ৩০ রান করে আউট হলেন।

সাময়িক স্বস্তি দিলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ৬৩ বলে ৬৭ রানের ইনিংস খেললেন তিনি। চার নম্বরে ব্যাট করতে নামা বিজয় শঙ্কর ২৯ রান করে আউট হলেন। এর পর চূড়ান্ত মন্থর ব্যাটিংয়ের নজির রাখলেন এমএস ধোনি। তাঁর সঙ্গে প্রায় একই পথে হাঁটলেন কেদার যাদবও। ধোনি ৫২ বলে ২৮ রান করে তাঁর কেরিয়ারে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার স্টাম্প আউট হলেন। যাদব ৬৮ বেল করলেন ৫২ রান।হাদিক পাণ্ড্যে ৭ ও মহম্মদ শামি ১ রান করে ফিরে গেলে‌ন। ৫০ ওভারে ভারতকে থামতে হল ২২৪-৮এ।

আফগানিস্তানের সব বোলাররাই এ দিন উইকেট পেলেন। দু'টি করে উইকেট নিলেন গুলবাদিন নাইব ও মহম্মদ নবি। একটি করে উইকেট মুজিব উর রহমান, আফতাব আলম, রশিদ খান ও রহমত শাহর।

এমএস ধোনি আর কেদার যাদবের মন্থর ব্যাটিং নিয়ে মজা টুইটারে

২২৫ রানের লক্ষ্যে নেমে মন্থর হলেও শুরুটা ভালই করে দিয়েছিল আফগানিস্তান। ভারতীয় বোলারদের যার সামনে বেগ পেতে হল। এই বিশ্বকাপে প্রথম বল হাতে নেমে ওপেনার হজরতুল্লা জাজাইকে ১০ রানে ফিরিয়ে দিলেন মহম্মদ শামি। এর পর গুলবাদিন নাইব ও রহমত শাহ ইনিংসকে টানেন। ২৭ রানে নাইব ও ৩৬ রানে শাহ আউট হন। ২১ রানে আউট হন হশমতুল্লা। আট রানে ফেরেন আসঘর আফঘান। ২১ রান করেন নাজিবুল্লা জার্দান। রশিদ খান ফেরেন ১৪ রানে।

এর মধ্যেই লড়াই চালিয়ে যান মহম্মদ নবি। হাফ সেঞ্চুরি করে শেষ ওভারে আউট হন তিনি। শেষবেলার জ্বলে ওঠে ভারতের বোলাররা। না হলে সমানে সমানে লড়াই দিয়ে অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছিল আফগানিস্তান। দুটো করে উইকেট নেন যশপ্রীত বুমরা, যুজবেন্দ্র চাহাল ও হার্দিক পাণ্ড্যে। চার উইকেট নিলে‌ন মহম্মদ শামি।

Afghanistan: হজরতুল্লা জাজাই, গুলবাদিন নাইব (অধিনায়ক), রহমত শাহ, হশমতুল্লা শাহিদি, আসঘর আফঘান, মহম্মদ নবি, ইক্রাম আলি খিল, নাজিবুল্লা জার্দান, রশিদ খান, আফতাব আলম, মুজিব উর রহমান।

India: লোকেশ রাহুল, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), বিজয় শঙ্কর, এমএস ধোনি, হার্দিক পাণ্ড্যে, কেদার যাদব, কুলদীপ যাদব, মহম্মদ শামি, যুজবেন্দ্র চাহাল, যশপ্রীত বুমরা।

Comments
সম্পর্কিত খবর
আফগানিস্তানকে হারিয়ে বোলারদের ভূয়সী প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন বিরাট কোহলি
আফগানিস্তানকে হারিয়ে বোলারদের ভূয়সী প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন বিরাট কোহলি
বিশ্বকাপে দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে হ্যাটট্রিক মহম্মদ শামির
বিশ্বকাপে দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে হ্যাটট্রিক মহম্মদ শামির
২০১১ বিশ্বকাপের পর আবার স্টাম্প আউট এমএস ধোনি, কেরিয়ারে দু’বার
২০১১ বিশ্বকাপের পর আবার স্টাম্প আউট এমএস ধোনি, কেরিয়ারে দু’বার
এমএস ধোনি আর কেদার যাদবের মন্থর ব্যাটিং নিয়ে মজা টুইটারে
এমএস ধোনি আর কেদার যাদবের মন্থর ব্যাটিং নিয়ে মজা টুইটারে
World Cup 2019, IND Vs AFG: শামির হ্যাটট্রিকে মান বাঁচল ভারতের
World Cup 2019, IND Vs AFG: শামির হ্যাটট্রিকে মান বাঁচল ভারতের
Advertisement