ফেডেরার-নাদালের জমজমাট ম্যাচেও গ্যালারিতে বসে কেন বইয়ে মগ্ন এই কিশোর?

Updated: 13 July 2019 19:19 IST

টুইটারে একের পর এক প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় ওই পড়ুয়া কিশোরের বই পড়াকে কেন্দ্র করে। রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় হয়ে ওঠে সে।

Young Boy Had His Eyes Glued To The Book In The Gallery During The Wimbledon Semi-Final
জমজমাট টেনিস-যুদ্ধের সময়ও এই কিশোর বসেছিল বই মুখে। © উইম্বলডনের স্ক্রিনগ্র্যাব

পুরনো প্রতিদ্বন্দ্বী রাফায়েল নাদালকে (Rafael Nadal) হারিয়ে দ্বাদশ বারের জন্য উইম্বলডনের ফাইনালে উঠলেন রজার ফেডেরার (Roger Federer)। ২০০৮ সালে উইম্বলডন (Wimbledon) ফাইনালে তাঁদের দু'জনের লড়াই আজও টেনিসপ্রেমীদের স্মৃতিতে দীপ্যমান। ১১ বছর আবার অল ইংল্যান্ড ক্লাবের প্রতিযোগিতায় মুখোমুখি হলেন তাঁরা। তবে এবার সেমিফাইনাল। আর সেই লড়াইতে শেষ হাসি হাসলেন ফেডেরারই। আটবারের উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন ৩৭ বছরের ফেডেরার জিতলেন ৭-৬ (৭/৩), ১-৬, ৬-৩, ৬-৪ ফলাফলে। এটাই ছিল নাদালের সঙ্গে তাঁর ৪০তম সাক্ষাৎ। কেরিয়ারের ৩১ গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী নোভাক জকোভিচ। জকোভিচ ষষ্ঠবারের জন্য উইম্বলডন ফাইনালে উঠলেন ২৩তম বাছাই স্পেনের রবার্তো বাতিস্তা আগুটকে ৬-২, ৪-৬, ৯-৩, ৬-২ ফলাফলে। এটি তাঁর ২৫তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনাল। তিনি চারবার খেতাব জিতেছেন এখান থেকে। নাদাল ও ফেডেরার বহু দিন পরে মুখোমুখি গ্র্যান্ড স্ল্যামে। স্বাভাবিক ভাবেই দর্শকাসনে সবাই উত্তেজনায় টগবগ ফুটছিলেন এই লড়াইয়ের সাক্ষী হতে পেরে। কিন্তু... একজন সেই দলে ছিল না। তাকে দেখা গিয়েছে বই হাতে। জমজমাট টেনিস-যুদ্ধের সময়ও এক কিশোর বসেছিল বই মুখে।

তখন চলছে প্রথম সেটের খেলা। ফেডেরার ও নাদাল হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করছেন। অসাধারণ সব মুহূর্ত তৈরি হচ্ছে কোর্টে।

নাদালকে হারিয়ে উইম্বলডন ফাইনালে জকোভিচের মুখোমুখি ফেডেরার

তখনই দেখা গেল সেই কিশোরকে। দৃষ্টি নিবদ্ধ হাতে ধরা বইয়ে।

এরপর টুইটারে একের পর এক প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় ওই পড়ুয়া কিশোরের বই পড়াকে কেন্দ্র করে। রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় হয়ে ওঠে সে।

এত বেশি বয়সে গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালে উঠে নজির গড়লেন ফেডেরার। এর থেকে বেশি বয়সে ফাইনাল খেলেছেন কেন রোজওয়েল। তিনি ১৯৭৪ সালে ৩৯ বছর বয়সে উইম্বলডন ও ইউএস ওপেন ফাইনালে খেলেছিলেন।

এভাবেও ফিরে আসা যায়! বিনিদ্র রজনী ভুলে কীভাবে কোর্টে ফিরলেন সেরেনা

জয়ের পরে ফেডেরার জানান, ‘‘আমি বিধ্বস্ত, খেলাটা শেষে এসে কঠিন হয়ে গিয়েছিল। রাফা অবিশ্বাস্য সব শট খেলছিল ম্যাচে টিকে থাকতে। একেবারে সর্বোচ্চ স্তরের খেলা। রাফার সঙ্গে লড়াই সব সময়ই স্পেশাল।''

এদিকে নোভাক জকোভিচের সঙ্গে খেলতেও তিনি উত্তেজিত, জানিয়ে দিয়েছেন ফেডেরার।

Comments
হাইলাইট
  • নাদাল ও ফেডেরার বহু দিন পরে মুখোমুখি গ্র্যান্ড স্ল্যামে
  • সেই জমজমাট টেনিস-যুদ্ধের সময়ও এক কিশোর বসেছিল বই মুখে
  • রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে সে
সম্পর্কিত খবর
এটিপি প্রশাসনে প্রত্যাবর্তন রাফায়েল নাদাল ও রজার ফেডেরারের
এটিপি প্রশাসনে প্রত্যাবর্তন রাফায়েল নাদাল ও রজার ফেডেরারের
‘‘ঘাস এমন সুস্বাদু আগে মনে হয়নি’’: উইম্বলডন জিতে অনুভব জকোভিচের
‘‘ঘাস এমন সুস্বাদু আগে মনে হয়নি’’: উইম্বলডন জিতে অনুভব জকোভিচের
ফেডেরারকে হারিয়ে উইম্বলডন জিতলেন জকোভিচ
ফেডেরারকে হারিয়ে উইম্বলডন জিতলেন জকোভিচ
ফেডেরার-নাদালের জমজমাট ম্যাচেও গ্যালারিতে বসে কেন বইয়ে মগ্ন এই কিশোর?
ফেডেরার-নাদালের জমজমাট ম্যাচেও গ্যালারিতে বসে কেন বইয়ে মগ্ন এই কিশোর?
নাদালকে হারিয়ে উইম্বলডন ফাইনালে জকোভিচের মুখোমুখি ফেডেরার
নাদালকে হারিয়ে উইম্বলডন ফাইনালে জকোভিচের মুখোমুখি ফেডেরার
Advertisement