এভাবেও ফিরে আসা যায়! বিনিদ্র রজনী ভুলে কীভাবে কোর্টে ফিরলেন সেরেনা

Updated: 10 July 2019 16:27 IST

উইলিয়ামস জানান, অনেক সময় লেগেছিল তাঁর। তবে শেষ পর্যন্ত আবার কোর্টে ফিরে আসতে পেরেছেন টেনিস সম্রাজ্ঞী।

How Serena Williams Moved Past Her US Open Controversy
নাওমি ওসাকার কাছে হারের পরে নিজের ফ্লোরিডার বাড়িতে পড়ে গিয়ে চোট পেয়েছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। © এএফপি

২০১৮ সালের ইউএস ওপেনের (US Open) ফাইনালে নাওমি ওসাকার (Naomi Osaka) কাছে হারের পরে নিজের ফ্লোরিডার বাড়িতে পড়ে গিয়ে চোট পেয়েছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস (Serena Williams)। ফাইনাল খেলা শেষ হয়েছিল বিতর্কের মধ্যে। আম্পায়ার কার্লোস রামোস তিনবার তাঁকে জরিমানা করেন। এই সিদ্ধান্তকে উইলিয়ামস ও অন্য অনেকেরই অন্যায্য বলে মনে হয়েছিল। উইলিয়ামস জানিয়েছিলেন, তাঁর নিজেকে ‘‘পরাজিত ও অসম্মাননীয় মনে হচ্ছে সেই খেলায় যা তাঁর প্রিয়।'' জরিমানা ও তাঁর প্রতিক্রিয়া— দুইয়ের ফলে খেলার পরেও টানা শিরোনামে থেকেছিলেন তিনি। পরিস্থিতি থেকে উদ্ধার পেতে এক থেরাপিস্টের দ্বারস্থ হতে হয় তাঁকে। মঙ্গলবার হার্পারের বাজার পত্রিকায় একটি লেখায় উইলিয়ামস এবিষয়ে জানিয়েছেন।

তিনি লিখেছেন, ‘‘প্রতি রাতে ঘুমোতে যেতাম উত্তর না মেলা প্রশ্ন নিয়ে। গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনাল থেকে কী করে তুমি হারিয়ে যেতে পারো? সত্যিই, কী করে একটা যে কোনও স্তরের প্রতিযোগিতা থেকেই কাউকে সরিয়ে দেওয়া যায়?''

পনেরো বছরের কোরি ‘কোকো' গফ পৌঁছলেন উইম্বলডনের শেষ ষোলোয়

বারবার তাঁর মনে হয়েছিল, কেন তিনি নিজের যন্ত্রণাকে প্রকাশ করতে পারছেন না। মনে হয়েছিল পুরুষ হলে এই পরিস্থিতিতে কি তিনি পড়তেন? সবটাই কি তিনি একজন মহিলা বলে?

তবে নিজেই নিজেকে সাত্ত্বনা দিয়েছিলেন তিনি। জানতেন সময় সব ভুলিয়ে দেবে। আবারও একজন শক্তিশালী অ্যাথলিট ও মা হিসেবে তিনি ফিরে আসবেন।

উইলিয়ামস ওসাকাকে চিঠি লেখেন। জানিয়ে দেন, জরিমানার কারণে কোর্টে তাঁর প্রতিক্রিয়ার জন্য তিনি দুঃখিত। এবং ম্যাচের পরেও তাঁর প্রতিক্রিয়া নিয়ে এমন আলোড়ন শুরু হয় যে ওসাকার ম্যাচ জয় ফিকে হয়ে যায়। তার জন্যও দুঃখপ্রকাশ করেন তিনি।

ওসাকার উত্তর পেয়ে কেঁদে ফেলেছিলেন সেরেনা। ওসাকা লেখেন, সবাই শক্তির জন্য কান্নাকে ভুল বোঝে। কেননা তারা দু'টোর মধ্যে ফারাক করতে পারে না।

১৫ বছর বয়সে ভেনাসকে হারিয়ে উইম্বলডনের স্বপ্নে মশগুল কোরি গফ

ক্রমে সেরেনা বুঝতে পারেন, তিনি সমালোচনা বা হারের কারণে ভেঙে পড়েননি। আসলে তাঁর মধ্যে অপরাধবোধ জেগেছিল কোর্টের মধ্যেই ওইরকম আচরণ করার জন্য।

কিন্তু ওসাকার চিঠি পেয়ে তিনি বুঝতে পারেন ব্যাপারটা অন্য। তিনি অনুভব করেন, আমাদের সমাজে এভাবেই কর্মক্ষেত্রে মেয়েদের থামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। তিনি লেখেন, ‘‘এটা লজ্জাজনক যে আমাদের সমাজে মেয়েদের জরিমানা করা হয় নিজের মতো হতে গেলে।''

উইলিয়ামস জানান, অনেক সময় লেগেছিল তাঁর। তবে শেষ পর্যন্ত আবার কোর্টে ফিরে আসতে পেরেছেন টেনিস সম্রাজ্ঞী।

মঙ্গলবার ৩৭ বছরের উইলিয়ামস উইম্বলডনের সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছেন। শনিবার ফাইনালে জিততে পারলে মার্গারেট কোর্টকে স্পর্শ করে সবচেয়ে বেশি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে ফেলবেন তিনি। এখনও পর্যন্ত ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেতাব জিতেছেন তিনি। ইতিহাস থেকে আর এক ধাপ দূরেই রয়েছেন সেরেনা উইলিয়মাস। অতীত ভুলে আপাতত সেই স্বপ্নেই মশগুল তিনি।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
Comments
হাইলাইট
  • ২০১৮ সালের ইউএস ওপেনের ফাইনালে বিতর্কে জড়ান সেরেনা
  • ফাইনাল খেলা শেষ হয়েছিল বিতর্কের মধ্যে
  • পরিস্থিতি থেকে উদ্ধার পেতে থেরাপিস্টের দ্বারস্থ হতে হয় তাঁকে
সম্পর্কিত খবর
US Open: মা হওয়ার পর গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের সামনে দাঁড়িয়ে সেরেনা উইলিয়ামস
US Open: মা হওয়ার পর গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের সামনে দাঁড়িয়ে সেরেনা উইলিয়ামস
দেখুন কী ভাবে নিজের বিয়েতে বলিউড মিউজিকের সঙ্গে নাচলেন এই টেনিস তারকা
দেখুন কী ভাবে নিজের বিয়েতে বলিউড মিউজিকের সঙ্গে নাচলেন এই টেনিস তারকা
স্বপ্নভঙ্গ সেরেনার! উইম্বলডনের ফাইনালে ৫৬ মিনিটে হার সিমোনা হালেপের কাছে
স্বপ্নভঙ্গ সেরেনার! উইম্বলডনের ফাইনালে ৫৬ মিনিটে হার সিমোনা হালেপের কাছে
এভাবেও ফিরে আসা যায়! বিনিদ্র রজনী ভুলে কীভাবে কোর্টে ফিরলেন সেরেনা
এভাবেও ফিরে আসা যায়! বিনিদ্র রজনী ভুলে কীভাবে কোর্টে ফিরলেন সেরেনা
সেরেনা উইলিয়ামসকে ‘ব্যাড পার্সনালির্টি’ বললেন ডমিনিক থিয়েম
সেরেনা উইলিয়ামসকে ‘ব্যাড পার্সনালির্টি’ বললেন ডমিনিক থিয়েম
Advertisement