Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com
 

ওজিলের অভিযোগের বিস্ফোরক শটটা বাঁচিয়ে যা বললেন সতীর্থ ন্যুয়ের

Updated: 03 August 2018 17:39 IST

ওজিলের বর্ণ বিদ্বেষমূলক অভিযোগের বলটা মাঠের বাইরে ছুড়ে ফেলে দিলেন দুনিয়ার অন্যতম সেরা গোলকিপার ন্যুয়ের।

No racism in German team Manuel Neuer reacts to Mesut Ozils retirement
ওজিলের বক্তব্যকে সমর্থন করলেন না ন্যুয়ের © এএফপি

বর্ণবিদ্বেষমূলক আচরণের অভিযোগ তুলে জার্মানির জার্সিতে আর না খেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া বিশ্বকাপ জয়ী তারকা মেসুট ওজিলের পাশে দাঁড়ালেন না তাঁর দলের সতীর্থ ম্যানুয়েল ন্যুয়ের। 2014 বিশ্বকাপে কতবার এমন হয়েছে সুইপার কিপার ন্যুয়ের পাশ বাড়াচ্ছেন ওজিলকে, আর সেই বল নিয়ে দারুণ সব আক্রমণ গড়ছেন আর্সেনালের তারকা এই মিডফিল্ডার। তবে ওজিলের বর্ণ বিদ্বেষমূলক অভিযোগের বলটা মাঠের বাইরে ছুড়ে ফেলে দিলেন দুনিয়ার অন্যতম সেরা গোলকিপার ন্যুয়ের।  জার্মান এই গোলকিপার এখন দক্ষিণ বাভারিয়ায় প্রি সিজন ট্রেনিং ক্যাম্পে ব্যস্ত। সেখানে দাঁড়িয়েই ন্যুয়ের বলছেন, '' আমাদের জার্মান দলে কখনও ভেদাভেদ ছিল না, নেই। আমরা সব সময় দল হিসেবে একসঙ্গে থাকার চেষ্টা করেছি। খেলতে নামার আগে সবাই যাতে ভালভাবে নামতে পারে সেই পরিবেশ রাখার চেষ্টা করা হত। ''সব রকমভাবেই ওজিলের অভিযোগ খণ্ডন করেন 2014 বিশ্বকাপের সেরা  তারকা এই জার্মান গোলকিপার।

রাশিয়ায় দলের বিপর্যয় নিয়ে ন্যুয়েরর বক্তব্য, দল একদম ভাল খেলতে পারেনি। তার মানে এই নয় আমরা চেষ্টা করিনি।'' ওজিলের মন্তব্য নিয়ে ন্যুয়ের বলেন, এটা নিয়ে অনেক চর্চা চলেছে। এটা ঠিক যারা বিষয়টা পড়েছেন, বা শুনেছেন তারা খুব একটা খুশি হননি। ' এরপর সুইপার কিপার যা বলেন তার মানেটা সাফ হল, জার্মান ফুটবলে এমন সংস্কৃতি নেই, যেখানে একজন খেলোয়াড়কে বর্ণবিদ্বেষের কারণে অপমানিত হতে হয়।  প্রসঙ্গত,  2009 সালে দেশের জার্সিতে অভিষেক হয় ওজিলের। জার্মানির হয়ে খেলেন মোট 92টি ম্যাচ। 23টি গোলও তিনি করেছেন। গত মাসের 22 তারিখ জার্মান ফুটবল ফেডারেশনের বিরুদ্ধে তোপ দেগে আর জার্মানির জার্সিতে না খেলার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন বিশ্বকাপ জয়ী ওজিল। 2014 বিশ্বকাপে জার্মান দলের প্রাণভোমরার অভিযোগ তাঁর সঙ্গে দেশের ফুটবল কর্তারা খারাপ ও বর্ণবিদ্বেষীমূলক আচরণ করেছিলেন। আর তাই তিনি জার্মানির ফুটবল থেকে চিরতরে সরে যাচ্ছেন। আর্সেনালের নম্বর 10-জার্সির ওজিলের পূর্বপূরষের ভিটে তুরস্কে। তাই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হচ্ছিল তিনি জার্মানির জার্সিতে সেরাটা দিচ্ছেন না। 

ওজিলের অভিযোগ ছিল, ''জার্মান ফুটবল ফেডারেশনের কর্তারা হেরে গেলেই তাঁকে অভিবাসী বলে কটাক্ষ করেন।'' তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এর্দোগানের পাশে দাঁড়িয়ে ছবি তোলার পর ওজিলের ওপর জার্মানিতে আক্রমণ নেমে আসে। যা নিয়ে ওজিল ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, ''আমি জিতে গেলে জার্মান, আর হেরে গেলেই অভিবাসী। এমন শুনতে শুনতে ক্লান্ত। কীভাবে রাশিয়া বিশ্বকাপে হারের জন্য তুরস্কের প্রেসিডেন্টে সঙ্গে আমার দেখা করার প্রসঙ্গ জুড়ে দেওয়া হয় তা জানি না।''ওজিল বললেন, খারাপ পারফর্ম করলে যে কোনও ফুটবলারকে সমালোচনা শুনেছি। আর্সেনালের হয়ে খেলার সময় তিনি এমন সমালোচনা অনেকবার শুনেছেন, কিন্তু কেউ যদি তাঁর ঐতিহ্য, আমার শিকড়কে নিয়ে কটাক্ষ করে সেটা আমি সহ্য করব না।''



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে.)
Comments
সম্পর্কিত খবর
ওজিলের অভিযোগের বিস্ফোরক শটটা বাঁচিয়ে যা বললেন সতীর্থ ন্যুয়ের
ওজিলের অভিযোগের বিস্ফোরক শটটা বাঁচিয়ে যা বললেন সতীর্থ ন্যুয়ের
অঘটনের বিশ্বকাপে তাদের প্রথম ম্যাচেই মেক্সিকোর কাছে হেরে গেল জার্মানি
অঘটনের বিশ্বকাপে তাদের প্রথম ম্যাচেই মেক্সিকোর কাছে হেরে গেল জার্মানি
অসুস্থ ম্যানুয়েল নিউয়ার জার্মানির বিশ্ব কাপ দলে সুযোগ পেলেন
অসুস্থ ম্যানুয়েল নিউয়ার জার্মানির বিশ্ব কাপ দলে সুযোগ পেলেন
Advertisement