ষষ্ঠ বার ব্যালন ডি’অর জয়ী Lionel Messi, খুদে পুত্রর প্রতিক্রিয়া ভাইরাল

Updated: 03 December 2019 12:39 IST

সোমবার লিওনেল মেসি টপকে গেলেন তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে। ইতিহাসে সর্বাধিক ব্যালন ডি’অর জেতার নজির গড়লেন তিনি।

Lionel Messi Wins Record 6th Ballon d
বাবার মুকুটে নয়া পালক যোগ হতে দেখে তাঁর পুত্র ম্যাতেও-র (Mateo) মিষ্টি প্রতিক্রিয়া ভাইরাল। © টুইটার

ষষ্ঠবারের জন্য ব্যালন ডি'অর (Ballon d'Or) জিতেছেন লিওনেল মেসি (Lionel Messi)। সোমবার রাতে মহাতারকা বাবার মুকুটে নয়া পালক যোগ হতে দেখে তাঁর পুত্র ম্যাতেও-র (Mateo) মিষ্টি প্রতিক্রিয়া থেকে স্পষ্ট খুদে পুত্রই মেসির সবথেকে বড় ভক্ত। মেসির ব্যালন ডি'অর জেতার খবর ঘোষিত হতেই ক্যামেরায় ধরা পড়ে যায় চার বছরের ছোট্ট ম্যাতেও প্রতিক্রিয়া। সে আনন্দে তার বসার আসনে লাফালাফি করতে থাকে। আনন্দে উদ্ভাসিত তার চোখমুখ। কেবল নিজের আসনে বসে উচ্ছ্বসিত হওয়াই নয়, আনন্দে ভেসে গিয়ে সে তার বসা শিশুটিকে জড়িয়ে ধরে। সেই শিশুটি অবশ্য মেসির ব্যালন ডি'অর জেতার খবরে খুব উত্তেজিত নয়, কিন্তু ম্যাতেও-র সে সবে ভ্রুক্ষেপ নেই। সে তখন আনন্দে আত্মহারা। এমন সরল, অনাবিল, পবিত্র আনন্দের প্রকাশ যে নেটিজেনদের হৃদয় জয় করবে সেটাই স্বাভাবিক।

আর্সেনালের হেড কোচ উনাই এমেরিসহ তাঁর কোচিং টিমকেই সরিয়ে দেওয়া হল

দেখে নিন সেই ভিডিও:

যদিও বাবাকে প্রায়ই ট্রোল করে থাকে ছোট্ট ম্যাতেও। বাবা ও দাদা থিয়েগোকে অস্বস্তিতে ফেলে রিয়েল মাদ্রিদ গোল করলে তাকে লাফালাফি করতে দেখা গিয়েছে অতীতে। আবার বাবার সঙ্গে ফুটবল খেলার সময় সে জানিয়ে দেয় সে লিভারপুল। কেননা তারা বার্সেলোনাকে হারিয়ে দিয়েছে!

সোমবার লিওনেল মেসি টপকে গেলেন তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে। ইতিহাসে সর্বাধিক ব্যালন ডি'অর জেতার নজির গড়লেন তিনি।

পুরস্কার জেতার পর মেসি জানিয়েছেন, ‘‘প্যারিসে ১০ বছর আগে প্রথম ব্যালন ডি'অর জিতি। আমার মনে পড়ে এখানে আমার তিন ভাইয়ের সঙ্গে আসার কথা। আমার বয়স ছিল ২২। এবং যা যা আমার সঙ্গে তারপর ঘটেছে তা সেই সময় অভাবনীয় ছিল।''

তিনি আরও বলেন, ‘‘আশা করি আরও কয়েক বছর ফুটবল উপভোগ করতে পারব। নিজের বয়স সম্পর্কে আমি সচেতন। এই সব মুহূর্ত আরও বেশি উপভোগ্য কেননা আমার অবসরের মুহূর্ত ক্রমেই কাছে এগিয়ে আসছে এবং তা কঠিন হবে।''

মেসি আরও জানিয়েছেন, এখনও খেলা ছাড়তে কয়েক বছর বাকি থাকলেও সময় যেন উড়ে চলেছে। যা ঘটছে তা দ্রুত ঘটছে। আপাতত তাঁর আশা ফুটবল, পরিবার ও প্রতিপক্ষদের সঙ্গে নিয়ে এই জীবন এমন করেই এগিয়ে চলুক তরতর করে।

Comments
Advertisement