চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে লিভারপুলের প্রতিপক্ষ টটেনহ্যাম হটস্পার

Updated: 09 May 2019 15:05 IST

১ জুন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মাদ্রিদে মুখোমুখি হচ্ছ লিভারপুল ও টটেনহ্যাম হটস্পার।

Champions League: Tottenham Hotspur Beat Ajax And Reached Final
লুকাস মৌরার হ্যাটট্রিকে বাজিমাত হটস্পারের © এএফপি

০-৩ পিছিয়ে পড়া লিভারপুল বার্সেলোনাকে ৪-৩-এ হারিয়ে Champions League-এর ফাইনালে পৌঁছেছে একরাত আগেই। আর তার পরের রাতেই স্বপ্ন ভাঙল Ajax-এর। ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে হজম করতে হল তিন গোল। Tottenham Hotspur ৩-২ গোলে Ajax-কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে লিভারপুলের মুখোমুখি তারা। যদিও দুই লেগ মিলে ম্যাচ ড্র হয়ে গিয়েছিল। প্রথম লেগে Ajax জিতেছিল ১-০ গোলে। অ্যাওয়ে ম্যাচেই তিন গোল দিল তারা। আর অ্যাওয়ে গোলের দৌলতে সেমিফাইনাল জিতে বাজিমাত করল Tottenham Hotspur। প্রথমার্ধে ম্যাচে ২-০-এ এবং মোট গোলে ৩-০তে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমেছিল টটেনহ্যাম। দ্বিতীয়ার্ধে তাদের ভাগ্য ঘুরিয়ে দিল লুকা মৌরার হ্যাটট্রিক

ম্যাচ শুরুর পাঁচ মিনিটের মধ্যেই গোল করে আয়াখসকে এগিয়ে দিয়েছিলেন মাথিজ ডে লিট। কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে মাথা ছুঁয়ে ডানদিকের কোণা দিয়ে বলকে টটেনহ্যামের গোলে পাঠান তিনি।

এগিয়ে থেকেই শুরু করেছিল আয়াখস। ম্যাচেই শুরুতেই গোল তুলে নিয়ে আত্মবিশ্বাসটাও অনেকটাই বাড়িয়ে নিয়েছিল তারা। যার ফল ৩৫ মিনিটেই ২-০ করে দেন হাকিম জিচ।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: বার্সেলোনাকে হারিয়ে ফাইনালে লিভারপুল

প্রথম গোল হজমের দু'মিনিটের মধ্য সমতায় প্রায় ফিরে এসেছিল টটেনহ্যাম। যদি না পোস্ট মাঝখানে আসত। গোল হজমের পর থেকেই মরিয়া হয়ে উঠেছিল স্পার্সরা। বার বার আক্রমণে উঠছিল। কিন্তু প্রথমার্ধে গোলে মুখ খুলতে ব্যর্থ। প্রথমার্ধটা থেকে যায় আয়াখসেএর দখলেই। সেখান থেকে যে একটা অর্ধ পুরোটা এ ভাবে বদলে যাবে তা কে জানত।

৫৫ মিনিট থেকে শুরু লুকাস ঝড়। যা গিয়ে থামল ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে। প্রথম গোল করে টটেনহ্যামকে ম্যাচে ফেরালেন লুকাস। আললির মাপা পাস থেকে লুকাসের দুরন্ত প্লেসিং। যা আটকানোর সুযোগ পাননি প্রতিপক্ষ গোলকিপার।

প্রিমিয়ার লিগ: ভিনসেন্টের গোলে আবার শীর্ষে ম্যানচেস্টার সিটি

প্রথম গোলের পর মাত্র চার মিনিটই হয়েছিল। আবারও লুকাস। লরেন্তের শট বাঁচিয়ে দিয়েছিলেন ওনানা। কিন্তু সেই বল ক্লিয়ার করতে পারেননি আয়াখস ডিফেন্ডাররা। ফিরতি বলে লুকাসের শট সরাসরি চলে যায় গোলে। লুকাস মৌরাআ এই মরসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যত গোল করেছেন সবই অ্যাওয়ে গোল। এর পরও বাকি ছিল আসল চমক।

৬৪ মিনিটে আয়াখাস আরও একবার চাপ সৃষ্টি করে। প্রায় গোলের মুখ খুলেই ফেলেছিল। এর পর খানিকটা সময় সমানে সমানে লড়াই চলে। কখনও তাতে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় পোস্ট। কখনও আয়াখস তো কখনও স্পার্স। আক্রমণ , পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে খেলা। লিভারপুল-বার্সেলোনার দ্বিতীয় লেগ যেমন এক তরফা ছিল এটা তেমন ছিল না। কিন্তু শেষ হাসি হাসার ছিল লুকাসেরই।

ম্যাচে অতিরিক্ত ১০ মিনিট খেলা হয়। আর তার সুযোগ নেয় স্পার্স। ৯৬ মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিক সেরে ফেলেন লুকাস মৌরা। সঙ্গে দলকে পৌঁছে দেন ফাইনালে।

Comments
হাইলাইট
  • ৩-০তে এগিয়ে থেকে হারতে হল আয়াখসকে
  • অ্যাওয়ে গোলের দৌলতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে টটেনহ্যাম
  • ফাইনালে লিভারপুলের বিরুদ্ধে খেলেতে হবে টটেনহ্যামকে
সম্পর্কিত খবর
অ্যাশেজের মাদকতায় টটেনহ্যাম হটস্পার স্টেডিয়ামেও ক্রিকেট উদযাপন ভক্তদের!
অ্যাশেজের মাদকতায় টটেনহ্যাম হটস্পার স্টেডিয়ামেও ক্রিকেট উদযাপন ভক্তদের!
Premier League: আগুয়েরোর ৪০০ গোলের দিন জয়ে ফিরল ম্যাঞ্চেস্টার সিটি
Premier League: আগুয়েরোর ৪০০ গোলের দিন জয়ে ফিরল ম্যাঞ্চেস্টার সিটি
চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালের হারকে মানতে পারছেন না টটেনহ্যামের ম্যানেজার
চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালের হারকে মানতে পারছেন না টটেনহ্যামের ম্যানেজার
চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়নরা ঘরে ফিরতেই লিভারপুল জুড়ে লাল ঢেউ
চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়নরা ঘরে ফিরতেই লিভারপুল জুড়ে লাল ঢেউ
হটস্পারকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল
হটস্পারকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল
Advertisement