চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: বার্সেলোনাকে হারিয়ে ফাইনালে লিভারপুল

Updated: 08 May 2019 04:16 IST

ওরিগি, উইজনালদামের জোড়া গোলে দুরন্ত কাম ব্যাক লিভারপুলের যা তাদের পৌঁছে দিল স্বপ্নের ফাইনালে পর পর দু’বার।

Champions League: Liverpool Reached Final After Beating Barcelona By 4-3
দুরন্ত কামব্যাক লিভারপুলের

একটা ৯০ মিনিট যে কী কী বদলে দিতে পারে তার প্রমান হয়তো হয়ে থাকবে এই ম্যাচ। অনেক বড় Liverpool ফ্যানও হয়তো আজ এই ফলের স্বপ্ন দেখেননি। আর অনেক বড় Barcelona ভক্তও এই দুঃস্বপ্নের কথা ভাবেননি। যা ঘটল মঙ্গলবার রাতের Anfield-এ। এই হতাশার রাত অনেক রাতের ঘুম কেড়ে নেবে বার্সেলোনা ফুটবলারদের। স্বপ্নের কাছে পৌঁছেও স্বপ্নকে না ছুঁতে পারার হতাশা। একটা গোল বদলে দিতে পারত বার্সার ভাগ্য, যা ৯০ মিনিটে করতে ব্যর্থ Messi-রা। যার ফল ৩-০ গোলে পিছিয়ে থাকা Liverpool ৪-৩ গোলে জিতে স্বপ্নের উড়ানে চেপে পৌঁছে গেল Champions League-এর ফাইনালে। গত মরসুমের পর আবারও ফাইনালে Liverpool।

শুধু কী তাই? যে লিভারপুলে মহম্মদ সালা নেই বলে হাহাকার পড়ে গিয়েছিল। যে দল নেমেছিল চারটি পরিবর্তন নিয়ে। সেই দল গুনে গুনে বার্সেলোনাকে ঘরের মাঠে চার গোল হজম করাল আর বার্সা মরণ কামরটা দিতে পারল না! 

নিউক্যাসেলের বিরুদ্ধে জয়ী দলে চারটিই পরিবর্তন এনেছিলেন ক্লপ। স্টুরিজের জায়গায় প্রথম দলে জায়গা করে নিয়েছিলেন ওরিগি। সালার জায়গায় নামেন শাকিরি। মাঝ মাঠে  উইজনালদামের জায়গায় নেমেছিলেন মিলনার। প্রথম লেগে ফরোয়ার্ডে খেলেছিলেন তিনি। আর রক্ষণে লভরেনকে বসিয়ে নামে মাতিপ। তবে ক্লপের উইজনালদামকে বসানোটা যে ভুল ছিল তা প্রমান হয়ে গিয়েছে ম্যাচ শেষে। পরিবর্তে তাঁকে নামিয়ে ম্যাচের মোর ঘুরল লিভারপুলের।

প্রিমিয়ার লিগ: ভিনসেন্টের গোলে আবার শীর্ষে ম্যানচেস্টার সিটি

ম্যাচ শুরুর সাত মিনিটের মধ্যেই গোল করে লিভারপুলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ওরিগি। শনিবারও গোল পেয়েছিলেন তিনি। পর পর দুই ম্যাচে লিভারপুলের হয়ে গোল পেলেন ওরিগি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ক্যাম্প ন্যুতে বার্সেলোনা ৩-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছিল লিভারপুলকে। ফাইনালে যেতে হলে লিভারপুলকে দ্বিতীয় লেগে চার গোল দিতে হত। সঙ্গে বার্সাকে গোল করতে না দেওয়াটাও ছিল বড় চ্যালেঞ্জ। যাতে তারা সফল।

শুরুতেই গোল হজম করে গোলের জন্য ঝাঁপাতে শুরু করে বার্সেলোনা। একটা অ্যাওয়ে গোল যে আরও অনেকটা এগিয়ে দিতে পারত তাঁদের তা খুব ভাল করেই জানতেন মেসিরা। গোলের পথ খুঁজতে থাকেন সুয়ারেজ,  মেসি, বুস্কেটস, কুটিনহোরা। কিন্তু ম্যাচ ৪৫ মিনিটে গড়িয়ে গেলেও সমতায় ফিরতে পারেনি বার্সা। তবে তাদের আত্মবিশ্বাস দিচ্ছিল প্রথম লেগের তিন গোল। হয়তো সেটাই অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসে পরিণত হয়েছিল বার্সেলোনার জন্য।

মাথায় চোট সালার, বার্সেলোনার বিরুদ্ধে নামার আগে চাপে ক্লপ

দ্বিতীয়ার্ধটা যেন লিভারপুলের জন্যই বরাদ্য ছিল। প্রথমার্ধে তাও বার্সেলোনাকে অল্প-বিস্তর গোলের জন্য ছটফট করতে দেখা গিয়েছিল। দ্বিতীয়ার্ধ শুধুই লিভারপুলময় হয়ে থাকল। ক্লপের একটা চালেই বাজিমাত হয়ে গেল। চোট পাওয়া রবার্টসনকে তুলে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই তিনি নামিয়ে দিলেন উইজনালদামকে। ৪৬ মিনিটে নামলেন ৫৪ ও ৫৬ মিনিটে গোল করে লিভারপুলকে সমানে সমানে জায়গায় নিয়ে এলেন।

৫৪ মিনিটে আলবা সুযোগ দিয়ে দিলেন উইজনালদামকে। ক্রসটা এসে পড়েছিল তাঁর পায়েই। সেখান থেকে গোল করতে ভুল করেননি তিনি। ২-০ থেকে ৩-০ হতে লাগল মাত্র দু'মিনিট। শাকিরির একটা অসাধারণ ক্রস আর ততোধিক অসাধারণ হেড উইজনালদামের। টার স্টেগান কোনও বারই কোনও সুযোগ পেলেন না বার্সার শেষ রক্ষণে দাঁড়িয়ে সাম্রাজ্য বাঁচানোর।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনাল: মেসির ৬০০, বার্সেলোনার ৩

৭৯ মিনিট ছিল একদিকে স্বপ্ন ভাঙার  আর অন্যদিকে প্রায় হাতছাড়া হয়ে যাওয়া লক্ষ্যকে ফিরে পাওয়ার। যাঁর হাত ধরে গোলের খাতা খুলেছিল লিভারপুল তাঁর অসাধারণ দক্ষতায় এই কাহিনীর শেষ লাইনটাও লিখে ফেলল তারা। ৪-০ করে দিলেন সেই ওরিগি। সাত মিনিটের পর আবার ৭৯ মিনিটে। যার পিছনে বড় ভূমিকা রেখে গেলেন আলেকজান্ডার আর্নল্ড। বার্সেলোনার তখনও হয়তো করার কিছু ছিল। হাতে আরও কম করে ১১ মিনিট ছিল সঙ্গে অতিরিক্ত সময়। একটা গোলই যথেষ্ট হতে পারত তাদের জন্য কিন্তু দলটার আত্মবিশ্বাসটাই হারিয়ে গিয়েছিল কোথাও, যা পুরো ম্যাচে আর ফিরল না। ৩-৪ গোলে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় হয়ে গেল বার্সেলোনার।

বুধবার আয়াখস-টটেনহ্যাম ম্যাচ শেষেই নির্ধারিত হয়ে যাবে লিভারপুলের ফাইনাল প্রতিপক্ষ কে।

Comments
হাইলাইট
  • প্রথম লেগে বার্সেলোনার ঘরের মাঠে ৩-০ গোলে হেরে গিয়েছিল লিভারপুল
  • অ্যানফিল্ডে জ্বলে উঠলেন ওরিগি ও উইজনালদাম
  • এই নিয়ে পর পর দু’বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে লিভারপুল
সম্পর্কিত খবর
"আরও উন্নতি করুন": বিরাট কোহলির জন্মদিনে শুভেচ্ছা পাঠালেন ফুটবল তারকারাও
"আরও উন্নতি করুন": বিরাট কোহলির জন্মদিনে শুভেচ্ছা পাঠালেন ফুটবল তারকারাও
FIFA Award 2019: দেখে নিন ফিফা সেরাদের তালিকা
FIFA Award 2019: দেখে নিন ফিফা সেরাদের তালিকা
সাদিও মানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে গুজবের জবাব এই ভাবে দিলেন Mohamed Salah
সাদিও মানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে গুজবের জবাব এই ভাবে দিলেন Mohamed Salah
FIFA Award: ভ্যান জিক, রোনাল্ডো ও মেসি রয়েছেন তালিকায়
FIFA Award: ভ্যান জিক, রোনাল্ডো ও মেসি রয়েছেন তালিকায়
Amitabh Bachchan -এর ‘নীল’ টুইট! কোন দলের সমর্থক বুঝিয়ে দিলেন টুইটে
Amitabh Bachchan -এর ‘নীল’ টুইট! কোন দলের সমর্থক বুঝিয়ে দিলেন টুইটে
Advertisement