‘অম্বাতি রায়ডুকে বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ দেওয়ার পিছনে কোনও পক্ষপাতিত্ব ছিল না’

Updated: 21 July 2019 21:33 IST

স্ট্যান্ডবাই হিসেবে থাকা স্বত্বেও কেন বিজয় শঙ্কর চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার পর রায়ডুকে নেওয়া হল না দলে? এই প্রশ্নের মুখেই রবিবার পড়তে হয়েছিল এমএসকে প্রসাদকে।

Ambati Rayudu
বিশ্বকাপে দলে রাখা হয়নি অম্বাতি রায়ডুকে © এএফপি

তিনি অবসর নিয়ে ফেলেছেন হতাশায়। কিন্তু তাঁকে নিয়ে আলোচনা যেন থামতেই চাইছে না। তিনি অম্বাতি রায়ডু। বিশ্বকাপের ১৫ জনের দলে সুযোগ না পেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছিলেন। চোট পেয়ে দু'জন বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলেও তাঁর ডাক না আসায় শেষ পর্যন্ত অবসর ঘোষণা করে দেন এই ব্যাটসম্যা‌ন। তার পরও তাঁকে নিয়ে প্রশ্নের জবাব দিতে হচ্ছে নির্বাচক প্রধানকে। স্ট্যান্ডবাই হিসেবে থাকা স্বত্বেও কেন বিজয় শঙ্কর চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার পর রায়ডুকে নেওয়া হল না দলে? এই প্রশ্নোর মুখেই রবিবার পড়তে হয়েছিল এমএসকে প্রসাদকে। তবে তা নিয়ে কোনও পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তিনি উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেন, হিসেব-নিকেশের দেখার কারনেই অম্বাতি রায়ডুকে দল থেকে বাদ পড়তে হয়েছে।

প্রসাদ বলেন, ‘‘যতটা আবেগ সেই ক্রিকেটারের (অম্বাতি রায়ডু) থাকে ততটাই আবেগের মধ্যে দিয়ে যা। নির্বাচক কমিটিও। যখন আমরা কোনও প্লেয়ারকে দলে নিই তখন সে ভাল করলে আমরা গর্বিত হই। ঠিক তেমনই যখন কোনও প্লেয়ারকে এ ভাবে বাইরে যেতে তখনও তাঁর অবস্থানটা বোঝে নির্বাচক কমিটি। তবে আমি এটা বলতে চাই, আমাদের সিদ্ধান্তের পিছনে কোনও পক্ষপাতিত্ব ছিল না কেন আমরা বিজয় শঙ্করকে নিয়েছিলাম। বা ঋষভ পন্থ বা মায়াঙ্ক আগরওয়ালকে।''

অম্বাতি রায়ডুর থ্রিডি টুইট আমি খুব উপভোগ করেছি, বললেন নির্বাচক প্রধান

রায়ডুর দলে সুযোগ না পাওয়ার কারনও জানিয়েছেন প্রসাদ। তিনি বলেন, ‘‘আমি রায়ডুর সম্পর্কে একটা ছোঠ উদাহরণ দিই। যখন রায়ডুকে নেওয়া হয় ১৭-১৮তে টি২০ (২০১৮ আইপিএল পারফর্মেন্স)-এর উপর নির্ভর করে। আমরা ওকে ওডিআই দলে নিয়েছিলাম। খুব সমলোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল। কিন্তু ওর সম্পর্কে আমাদের ভাবনা-চিন্তা ছিল।''

তিনি বলেন, ‘‘ও যখন ফিটনেস (ইও ইও) টেস্ট (ইংল্যান্ড সফর)-এ পাশ করতে পারেনি তখন নির্বাচক কমিটি তাঁর পিছনে ছিল। একমাসের একটা ফিটনেস প্রোগ্রামের মধ্যে রাখা হয়েছিল। নিশ্চিত করার জন্য যে ও ফিট হয়ে দলে আসবে। ও যখন দলে এল আমরা ওর পিছনে ছিলাম কিন্তু সেই হিসেব-নিকেশের কারনে ও দলে সুযোগ পায়নি।''

তবে তিনি এটা পরিষ্কার করার চেষ্টা করেন যে তাঁর কমিটি পক্ষপাতদুষ্ট নয়।

বলেন, ‘‘তবে রায়ডুর বাদ পড়ার পিছনে এমন কোনও বিষয় নেই। আমি বুঝতে পারি ওর আবেগের জায়গাটা। আমিও প্রাক্তন প্লেয়ার তাই আর বুঝতে পারি।''

‘ঋষভ পন্থকে পরবর্তী উইকেটকিপার-বাটসম্যান হিসেবে তৈরি করতে হবে'

তবে ঋষভ পন্থ এবং মায়াঙ্ক আগরওয়াল‌ কেন? তার জবাব দিয়েছেন তিনি। 

‘‘টিম ম্যানেজমেন্টএকজন বাঁ হাতি চেয়েছিল। ঋষভ পন্থ ছাড়া আমাদের হাতে কোনও বিকল্প ছিল না। আমরা এই বিষয়ে খুব পরিষ্কার। আমরা জানি ও কী পারে। যে কারণে আমরা একজন বাঁ হাতিকে নিয়ে এসেছিলাম। সকলেই অবাক হয়েছিল, কেন একজন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানকে ওপেনারের জায়গায় নিয়ে আসা হল।''

তাহলে মায়াঙ্ক আগরওয়াল কেন?

‘‘এর পর ব্যাকআপ ওপেনার চাওয়া হল আমাদের কাছে। আমরা বেশ কয়েকজন ওপেনারকে দেখলাম। কেউ ফর্মে ছিল না, কারও চোট ছিল। তখন আমরা মায়াঙ্ক আগরওয়ালকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিই। কোনও কিছু নিয়ে কোনও সংশয় ছিল না।দিনের শেষে সব সংশয় পরিষ্কার হয়ে গেল।''

(তথ্য পিটিআই)

Comments
হাইলাইট
  • ৩ জুলাই সব রকমের ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করেন অম্বাতি রায়ডু
  • স্ট্যান্ডবাই হিসেবে থাকা স্বত্বেও তাঁকে পরিবর্ত হিসেবে নেওয়া হয়‌নি
  • এমএসকে প্রসাদ বলেন এই সিদ্ধান্তে কোনও পক্ষপাতিত্ব নেই
সম্পর্কিত খবর
‘অম্বাতি রায়ডুকে বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ দেওয়ার পিছনে কোনও পক্ষপাতিত্ব ছিল না’
‘অম্বাতি রায়ডুকে বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ দেওয়ার পিছনে কোনও পক্ষপাতিত্ব ছিল না’
অম্বাতি রায়ডুর থ্রিডি টুইট আমি খুব উপভোগ করেছি, বললেন নির্বাচক প্রধান
অম্বাতি রায়ডুর থ্রিডি টুইট আমি খুব উপভোগ করেছি, বললেন নির্বাচক প্রধান
‘‘ওরা যা করল দেখে হতাশ’’: রায়ডুর অকাল অবসর নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিলেন যুবরাজ
‘‘ওরা যা করল দেখে হতাশ’’: রায়ডুর অকাল অবসর নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিলেন যুবরাজ
অবসরের পর অম্বাতি রায়ডুর জন্য শুভেচ্ছা বিরাট কোহলিদের
অবসরের পর অম্বাতি রায়ডুর জন্য শুভেচ্ছা বিরাট কোহলিদের
পাঁচজন নির্বাচকের মোট রানও রায়ডুর রানের থেকে বেশি নয়, বিস্ফোরক গম্ভীর
পাঁচজন নির্বাচকের মোট রানও রায়ডুর রানের থেকে বেশি নয়, বিস্ফোরক গম্ভীর
Advertisement