PV Sindhu: বিশ্বজয়ের পর তিরুপতি মন্দিরে পুজো দিলেন সিন্ধু

Updated: 30 August 2019 18:32 IST

বিশ্বজয় করার পর ভারতীয় তারকা শাটলার পিভি সিন্ধু (PV Sindhu) শ্রীভেঙ্কটেশ্বর মন্দিরে (Sri Venkateswara Temple) পুজো দিয়ে ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

PV Sindhu Visits Andra Pradesh
মন্দিরে গিয়ে আগামী দিনের প্রতিযোগিতাগুলিতে ভাল পারফরম্যান্স করার প্রার্থনা করেন সিন্ধু। © এএনআই

ব্যাডমিন্টনে প্রথম ভারতীয় হিসেবে বিশ্বজয় করার পর ভারতীয় তারকা শাটলার পিভি সিন্ধু (PV Sindhu) শুক্রবার অন্ধ্রপ্রদেশের তিরুমালায় শ্রীভেঙ্কটেশ্বর মন্দিরে (Sri Venkateswara Temple) পুজো দিতে গেলেন। এদিন সকালে তিনি মন্দিরে গিয়ে ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন, ‘‘আগামী দিনের প্রতিযোগিতাগুলিতে ভাল পারফরম্যান্স করার প্রার্থনা করলাম।''ব্যাডমিন্টনের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে (World Championships) জাপানের নোজোমি ওকুহারাকে হারিয়ে দেন সিন্ধু। তিনি জয়লাভ করেন ২১-৭, ২১-৭ ফলাফলে। প্রথম ভারতীয় হিসেবে ব্যাডমিন্টনে বিশ্বজয় করেন তিনি। এর আগে ২৪ বছরের সিন্ধু বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে চারটি মেডেল পেয়েছিলেন। ২০১৩ ও ২০১৪ সালে ব্রোঞ্জ পান তিনি। এরপর ২০১৭ ও ২০১৮ সালে পরপর দু'বার রুপো পান তিনি।

দেশে ফিরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করলেন PV Sindhu

কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ, প্রাক্তন ক্রিকেটার চামুণ্ডেশ্বরীনাথ ও আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লও মন্দিরে গিয়ে ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করেন।

মন্দির প্রশাসন এই ভিআইপিদের অভ্যর্থনা করেন মন্দিরের নিয়ম মেনে। পুরোহিতরা তাঁদের বৈদিক মন্ত্রের মাধ্যমে আশীর্বাদ করেন।

পরপর দু'বার ফাইনালে হারতে হলেও এবার সোনা আর অধরা থাকেনি। ঐতিহাসিক জয়ের পর মন ছুঁয়ে যাওয়া এক বার্তা ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন সিন্ধু। যেখানে প্রতিটি লাইনে বেরিয়ে এসেছে তাঁর আবেগের কথা। বেরিয়ে এসেছে জয়ের পর তাঁর অনুভূতির কথা। সিন্ধু তাঁর পোস্টে লেখেন, তিনি এতটাই আবেগান্বিত ছিলেন যে চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি। পোডিয়ামে দাঁড়িয়ে নিজের দেশের পতাকাকে সবার উপরে উঠতে দেখা আর তার সঙ্গে জাতীয় সঙ্গীত।

সিন্ধু লেখেন, ‘‘আমি আমার চোখের জলকে আটকাতে পারিনি যখন আমি ভারতের পতাকা দেখি এবং পিছনে বেজে ওঠে জাতীয় সঙ্গীত।''

দেশের পতাকা আর জাতীয় সঙ্গীত শুনে চোখের জল আটকাতে পারিনি: PV Sindhu

সিন্ধু আরও লেখেন, ‘‘গতকাল ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ের কথা শব্দে প্রকাশ করতে পারছি না। বহুদিন ধরে এই দিনটির জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি। শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা শেষ হল। এটা সম্ভব হত না যদি না আমার বাবা-মা, আমার কোচ (গোপী স্যার ও মিস কিম) ও আমার ট্রেনার (শ্রীকান্ত বর্মা) থাকতেন। সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই আমার স্পনসর এবং আমার সব ফ্যানদের। যারা আমাকে পুরো সমর্থন করে গিয়েছে। শেষ পর্যন্ত ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়ন ২০১৯।''

ম্যাচ শেষে সাক্ষাৎকারের সময় সিন্ধু জানান, এই জয় তিনি উৎসর্গ করছেন তাঁর মা পি বিজয়াকে। কেননা, রবিবারই ছিল তাঁর মায়ের জন্মদিন। আবেগে ভেসে গিয়ে ভেজা চোখে সিন্ধু জানান, ‘‘আমি এই জয়কে আমার মায়ের প্রতি উৎসর্গ করতে চাই।''

২০১৬ সালে রিও অলিম্পিকে সিন্ধু রুপো জেতেন। ওই বছরই তিনি ইন্দোনেশিয়া ওপেনের ফাইনালে পৌঁছন। কিন্তু আকানে ইয়ামাগুচির কাছে হারতে হয় তাঁকে।

Comments
হাইলাইট
  • শুক্রবার সকালে তিরুপতি মন্দিরে পুজো দিতে আসেন সিন্ধু
  • মন্দিরে গিয়ে ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন তিনি
  • সদ্য তিনি ব্যাডমিন্টনে প্রথম ভারতীয় হিসেবে বিশ্বজয় করেছেন
সম্পর্কিত খবর
Hong Kong Open: শেষ আটে কিদাম্বি শ্রীকান্ত, ছিটকে গেলেন পিভি সিন্ধু
Hong Kong Open: শেষ আটে কিদাম্বি শ্রীকান্ত, ছিটকে গেলেন পিভি সিন্ধু
French Open: পিভি সিন্ধু, সাইনা নেহওয়ালের সামনে নতুন লক্ষ্য
French Open: পিভি সিন্ধু, সাইনা নেহওয়ালের সামনে নতুন লক্ষ্য
China Open: সাইনা নেহওয়ালের পর বিদায় হয়ে গেল পিভি সিন্ধুরও
China Open: সাইনা নেহওয়ালের পর বিদায় হয়ে গেল পিভি সিন্ধুরও
PV Sindhu: বিশ্বজয়ের পর তিরুপতি মন্দিরে পুজো দিলেন সিন্ধু
PV Sindhu: বিশ্বজয়ের পর তিরুপতি মন্দিরে পুজো দিলেন সিন্ধু
‘ক্লান্তিকর’ লিখে ট্যুইটারে সিন্ধুর অনুশীলনের ভিডিও দিলেন আনন্দ মহিন্দ্রা
‘ক্লান্তিকর’ লিখে ট্যুইটারে সিন্ধুর অনুশীলনের ভিডিও দিলেন আনন্দ মহিন্দ্রা
Advertisement