ফাইনালে মাঠে ঢুকে 'পুসি রায়ট'-এ পুতিনের ভূবনমুগ্ধ সুরে তাল কাটলো

Updated: 16 July 2018 13:03 IST

পুলিস এসে প্রতিবাদীদের সরানোর আগেই তাঁদের এক বিক্ষোভকারীকে আক্রমণ করে মাটিতে ফেলে দিলেন ক্রোয়েশিয়ান ডিফেন্ডার ডেজার্ন লোভার্ন।

World Cup 2018: Pussy Riot Claim In World Cup Final
মস্কোয় ফাইনালে মাঠে ঢুকে প্রতিবাদ © এএফপি

রাশিয়া বিশ্বকাপে জঙ্গি নাশকতার আশঙ্কা ছিল। আল কায়দা থেকে রাশিয়ার 'ঘরের শত্রু' চেচনিয়া জঙ্গিরা 2018 বিশ্বকাপে জঙ্গি হামলা ঘটিয়ে দুনিয়ায় তোলপাড় করতে চেয়েছিল। আল কায়দা তো মেসি, রোনাল্ডোকে মাঠ থেকে সোজা বিমান চাপিয়ে অপহরণের ছকও কষেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত পুতিনের দেশের বিশ্বকাপ 'অল ইজ ওয়েল' হল। যদিও গতকাল, রবিবার ফাইনালে পুতিনের সুরে তাল কাটল। গোটা বিশ্বকাপে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করে, মস্কোয় লুঝনিকি স্টেডিয়ামে ফাইনালে নিরাপত্তারক্ষীদের চোখে ধুলো দিয়ে মাঠে ঢুকে পড়লেন চার বিক্ষোভকারী। ফাইনালে ম্যাচের 52 মিনিটে মাঠে ঢুকে পড়ে তিন মহিলা ও এক পুরুষ বিক্ষোভকারীরা নানাভাবে দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করেন। তাদের একটাই লক্ষ্য তাদের বিদ্রোহের বার্তা যেন গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। সেটা হলও। গ্রিজম্যান, মদরিচ-রা খেলা থামিয়ে বিক্ষোভকারীদের দেখে চমকে গেলেন। ফাইনাল ম্যাচ থমকে গেল মাঠে ঢুকে পড়া ওই বিক্ষোভকারীদের জন্য। পুলিশ এসে প্রতিবাদীদের সরানোর আগেই তাঁদের এক বিক্ষোভকারীকে আক্রমণ করে মাটিতে ফেলে দিলেন ক্রোয়েশিয়ান ডিফেন্ডার ডেজার্ন লোভার্ন। কারণ 1-2 পিছিয়ে থাকা ক্রোটরা তখন ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করছেন।  বিক্ষোভকারীদের যখন টেনে হিড়হিড় বাইরে নিয়ে যাচ্ছেন নিরাপত্তারক্ষীরা, সেটা পুতিনের জন্য ভাল বিজ্ঞাপন হল না। কারণ এই বিক্ষোভের মূল তীরটা তাঁর দিকে লক্ষ্য করেই উড়ে এসেছে।  

ওই চার বিক্ষোভকারী আসলে পুসি রায়টের সদস্য। যে পুসি রায়ট হল একটা বিদ্রোহী গানের ব্র্যান্ড। যাদের কাজ হল প্রতিষ্ঠান বিরোধী রক মিউজিক তৈরি করে গোটা দেশে বিদ্রোহীর সুর বেঁধে দেওয়া। পুসি রায়ট-এর আশঙ্কা ছিল গোয়েন্দাদের। রাশিয়ার ম্যাচে পুসি রায়ট হতে পারে বলে স্থানীয় মিডিয়ায় খবরও হয়েছিল। কিন্তু বিক্ষোভকারীরা সেরাটা তুলে রেখেছিলেন ফাইনালের জন্য। হাফ টাইমের পর নিরাপত্তরক্ষীদের ঢিলেমিটা কাজে লাগিয়ে 'পুসি রায়ট'-এর সদস্যরা মাঠে বিক্ষোভ দেখাতে নেমে পড়েন।     
 ফাইনালে মাঠে ঢুকে প্রতিবাদ নিয়ে পুসি রায়টের টুইটার হ্যান্ডেলে বলা হয়, বাধ্য হয়েই তারা এই পথ বেছেছেন। কারণ রাশিয়ায় এখন বাকস্বাধীনতা রুদ্ধে। তারা মূলত তিনটি দাবি তুলে ধরেছেন। 1) দেশের সব রাজনৈতিক বন্দিদের শর্তহীন মুক্তি। 2) প্রতিবাদ করলেই বেআইনি গ্রেফতার করা যাবে না, 3) দেশে রাজনৈতিক প্রতিযোগিতার অনুমতি প্রদান। আর এই সব কটার পিছনেই পুতিনকেই কাঠগড়ায় তুলেছেন বিদ্রোহীরা।

ফিফা অবশ্য আয়োজক রাশিয়ার বিশ্বকাপ আয়োজনে মুগ্ধ। এত বড় দেশে যেভাবে এত নিখুঁতভাবে বিশ্বকাপ সম্পন্ন হল, তার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে.)
Comments
হাইলাইট
  • ক্রোয়েশিয়াকে 4-2 গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপ জেতে ফ্রান্স
  • তিনজন মহিলা ও এক পুরুষ বিক্ষোভকারী ফাইনালের মাঝে মাঠে ঢোকেন
  • বিক্ষোভের পিছনে রাশিয়ায় প্রতিষ্ঠান বিরোধী পুসি রায়ট গোষ্ঠী
সম্পর্কিত খবর
মেসিদের মাথায় হাত ফেলে দেওয়া এই গোলটাই পেল বিশ্বকাপে সেরার পুরস্কার
মেসিদের মাথায় হাত ফেলে দেওয়া এই গোলটাই পেল বিশ্বকাপে সেরার পুরস্কার
বিস্ফোরক অভিযোগ তুলে জার্মানির হয়ে আর খেলবেন না বিশ্বজয়ী ওজিল
বিস্ফোরক অভিযোগ তুলে জার্মানির হয়ে আর খেলবেন না বিশ্বজয়ী ওজিল
বিশ্বকাপে ঠিক যে মুহূতটা টুইটারে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়
বিশ্বকাপে ঠিক যে মুহূতটা টুইটারে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়
যে কারণে ব্যাপক ক্ষতি হল রাশিয়া বিশ্বকাপের 1750 কোটি টাকার স্টেডিয়ামের
যে কারণে ব্যাপক ক্ষতি হল রাশিয়া বিশ্বকাপের 1750 কোটি টাকার স্টেডিয়ামের
কাপ জয়ের পর ড্রেসিংরুমে ফরাসিদের উচ্ছ্বাসের মন ভাল করা মুহূর্তগুলো
কাপ জয়ের পর ড্রেসিংরুমে ফরাসিদের উচ্ছ্বাসের মন ভাল করা মুহূর্তগুলো
Advertisement